দুর্নীতি ঢাকতেই সাংবাদিক রোজিনাকে নির্যাতন ও মামলা

প্রকাশিত: ৩:৩১ অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০২১ | আপডেট: ৩:৩১:অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০২১

রিপন আনসারী,মানিকগঞ্জ থেকেঃ  

সম্প্রতি স্বাস্থ্যখাতে অনিয়ম, দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনা নিয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করেছেন প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলাম। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দূর্নীতিবাজ আমলাদের দুর্নীতি ঢাকতে রোজিনাকে হেনস্তা করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার বিকেলে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এসব কথা বলেন। প্রথম আলো মানিকগঞ্জ বন্ধুসভা এই কর্মসূচির আয়োজন করে। এতে বাংলাদেশের কমিটিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), উদীচী, খেলাঘর আসরসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও প্রগতিশীল রাজনৈতিক সংগঠন একাত্মতা জানিয়ে কর্মসূচিতে অংশ নেন।

প্রথম আলো মানিকগঞ্জ বন্ধুসভার আহবায়ক আবু সালেহ সালেকের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব আবদুস সালামের সঞ্চালনায় বক্তৃতা করেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা আজহারুল ইসলাম, জেলা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক আবুল ইসলাম শিকদার, জেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, উদীচীর জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, বারসিকের জেলার সমন্বয়ক বিমল রায়, প্রথম আলোর মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, আব্দুল মোমিন, খেলাঘর আসরের সদস্য আরশেদ আলী, প্রগতি লেখক সংঘের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, বন্ধুসভার সদস্য আশিক হোসেন প্রমুখ।

অধ্যাপক আবুল ইসলাম শিকদার বলেন, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় রোজিনা ইসলামের দেশ ও দেশের বাইরে সুনাম রয়েছে। আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত এই সাংবাদিককে যেভাবে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন করা হয়েছে, তা এই একবিংশ শতাব্দিতেও দেখা গেল। তিনি অবিলম্বে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নিঃশর্ত মুক্তি এবং নির্যাতনকারী আমলাদের শাস্তির দাবি জানান।

বীরমুক্তিযোদ্ধা আজহারুল ইসলাম বলেন, স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি ও অনিয়ম নিয়ে সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম অনেকগুলো অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করার কারণে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের কতিপয় দুর্নীতিবাজ আমলাদের আতে ঘা লেগেছিল। পূর্বপরিকল্পিতভাবেই সেই আমলারাই রোজিনাকে হেনস্থা ও নির্যাতন করেছেন। তাছাড়া যে মামলায় একজন নারী সাংবাদিককে গ্রেপ্তার ও কারাবরণ কারাগারে পাঠানো হলো, তা দুঃখজনক। সাংবাদিক রোজিনাকে দ্রুত মুক্তির পাশাপাশি স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের দুর্নীতিবাজ আমলাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানান তিনি।