ফের রগ কাটার রাজনীতি-আত্রাইয়ে শ্রমীক লীগ নেতার হাত-পায়ের রগ কেটে গুরুতর জখম

প্রকাশিত: ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ, মে ১৬, ২০২১ | আপডেট: ৩:৫৫:অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০২১

নাদিম আহমেদ অনিক,স্টাফ রিপোর্টার:

নওগাঁর আত্রাইয়ে ঠিকাদারি কাজের টাকা নিয়ে বিরোধের জেরে আত্রাই উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমের ছেলে রাব্বি, লিটনসহ ০৮/১০ জন শোয়েবের অফিসের ভিতরে ঢুকে তার হাত ও পায়ের রগ কেটে গুরুতর জখম করা হয়েছে।

জখমকৃত ব্যক্তি হলেন জেলার আত্রাই উপজেলাধীন সাহেবগঞ্জ এলাকার আত্রাই উপজেলা শ্রমীক লীগের সাধারণ সম্পাদক খাজা মাষ্টারের পুত্র সরদার মোহাম্মদ সোয়েব (৪৬)।

এসময় তার হাত পায়ের রগ কেটে, গলা এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আত্রাই থানা পুলিশ এবং স্থানীয় লোকজন পৌঁছে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আত্রাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হলে, কর্তব্যরত চিকিৎসক শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে প্রেরণ করেন।

জানা যায়, অভিযুক্ত রাব্বি আত্রাই উপজেলা পরিষদের আওয়ামী মনোনীত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম এর ছেলে। দীর্ঘদিন হতেই মমতাজ বেগম এবং আহত সরদার সোয়েব এর মধ্যে ঠিকাদারি কাজের টাকা নিয়ে বিরোধ ও রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এর ফলে তাকে কুপিয়ে আহত করা হতে পারে বলে স্থানীয়রা ধারনা করছেন।