দুই সফরসঙ্গীর করোনা,পুরো জি-৭ টিম আইসোলেসনে, লন্ডনে বেকায়দায় জয়শঙ্কর

প্রকাশিত: ১১:৩৯ অপরাহ্ণ, মে ৫, ২০২১ | আপডেট: ১১:৩৯:অপরাহ্ণ, মে ৫, ২০২১

০৫ মে ২০২১,

 

জি-৭–এর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে যোগ দিতে যুক্তরাজ্যে যাওয়া ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সফরসঙ্গীদের দুজনের করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এখন আর যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাবের সঙ্গে সরাসরি সাক্ষাৎ করছেন না তিনি। জোটের বৈঠকও অনালাইনেই সারতে হবে তাঁকে।

আজ বুধবার কয়েকটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে ভারতের বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এনডিটিভির খবরে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দুই সফরসঙ্গীর করোনা পজিটিভ হওয়ার কথা জানানো হয়।

এক টুইটে জয়শঙ্করও বাড়তি সতর্কতা হিসেবে অনলাইনে বৈঠকগুলোতে অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন।

বিশ্বের শিল্পোন্নত দেশগুলোর জোট জি-৭–এর পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং উন্নয়নবিষয়ক মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে অংশ নিতে গত সোমবার লন্ডন পৌঁছান জয়শঙ্কর।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার তাঁর ডমিনিক রাবের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা ছিল। এখন এই বৈঠক অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর টুইটে বলা হয়েছে, ‘গতকাল সন্ধ্যায় সম্ভাব্য কোভিড পজিটিভ সংক্রমিত মানুষের সংস্পর্শে থাকার বিষয়টি টের পেয়েছি। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ ও অন্যদের কথা বিবেচনা করে আমার সব কার্যক্রম ভার্চ্যুয়াল মোডে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। জি-৭–এর মিটিংগুলোর ক্ষেত্রেও অনলাইনে যুক্ত হব।’

জি–৭ ভুক্ত দেশগুলো হলো কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য। করোনা মহামারির মধ্যে সরাসরি প্রথমবারের মতো সম্মেলনে অংশ নিচ্ছেন দেশগুলোর প্রতিনিধিরা। করোনা মহামারি শুরুর পর জি-৭ সদস্যদেশগুলোর মন্ত্রীদের প্রথম বৈঠকও এটি। এবারে সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী কর্মীদের প্রতিদিন করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

এখানে করোনা পরীক্ষার জন্য বিশেষ স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। ঘণ্টায় ৫০ জনের করোনা পরীক্ষা করা যাবে সেখানে। এ ছাড়া পুরো সম্মেলনে অতিথিদের সামাজিক দূরত্বের নিয়ম মানতে হবে। দূরত্ব বজায় রাখার জন্য বিশেষ ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে সেখানে। এবারের সম্মেলনে করোনার ঝুঁকি কমাতে অতিথির সংখ্যাও কমানো হয়েছে।